মলয় দত্ত এর কবিতা ভাবনা | মিহিন্দা





কবিতার কোনো ভাবনা নাই টাইটেলের কবিতার ভাবনা এরকম হতে পারে কিন্তু তা হবেনা কে যেন হতে দেবেনা বা কারা যেন এসে বাধা দেবে বলবে নাছোরবান্দার দলে কবিতা লইয়া কি লাগাইছে দেখছেন, ওরা বাতিল ওরা শাহবাগী ওরা কথায় কথায় বিপ্লব মারায় ওরা বাতিল ওরা ছন্দের ছ ও জানেনা। তাও আমিতো লম্পট আর মাতালদের একজন নিজেকে একজন সুবোধ ছাত্র হিসেবে ভাবতেই চাইনা তাই আমি কবিতার ভাবনা বিশাল আকারে বলতে পারিনা আমি বলি আর বললেই সব বলে ফেলা কথা বিপরীত মেরুতে গিয়ে দাড়ায়, যেনো আমার বলা একটা সুখী সমৃদ্ধ নিদেনপক্ষে শান্তিময় সমাজের গাড় মেরে দিলো, হা হা হা তাইতো ও তামাম কনসেপ্ট আমি তোমাকে সম্পুর্ন নতুন এক ফর্মে অব্যক্তকে ব্যক্ত করার মত করে পরবর্তী সময়েত অস্তিত্ব সম্পর্কে স্পর্শ পাঠিয়ে দেবো, আমি যেটুকু জানি তা হোলো কবিতা নিজেই কবিতা ইয়েস কবিতা ইটসেল্ফ কবিতা আমি অরুপ তোমার মতই তোমার গলার ভেতর বসেই বলবো কবিতা এক জ্যান্ত অসীম ব্যাধি, অনন্ত মৃত্যুর চণ্ড নাচ, এক অলৌকিক রাস্তার সন্ধান, কেবল কেবলই ধবংস হয়ে যাওয়া, কবিতা লজিকের মদ, স্মৃতি বিস্মৃতির মহাসংঘাত...নিশ্চয়ই আপনি আমাকে শুয়োরেরবাচ্চা বলবেন জানি, কেনোনা আমার ভাষা সন্ধান দিচ্ছে নতুন শক্তির, আমার কবিতার সাথে গদ্যের সাথে সিনেমার সাথে পাঠকের দর্শকের যে মৈথুন চলে তা মোটেও ভালো না, অসুখী, তারা ভাবছে সাহিত্যের দুর্দশাগ্রস্থ এক জার্নির মধ্যে পড়ে গেলাম নাকিরে বাবাহ...না আসলে আমার লেখার ভাষা একটা যুগের রাজনৈতিক বাস্তবতা, প্রতিটা হ্যাঁ প্রতিটা মানুষ যে কি পরিমান একা, আমাদের যে কি অভাব, কি যে চাই, সেই বাস্তবতা অসহায়তা, রাজনৈতিক প্রতিবাদ একাকীত্বেরর আরো বাস্তব গভীরে যাওয়ার পথ উদ্ভাসিত করার গুরুত্বপুর্ন ক্ষমতা রাখে বলেই আমি বিশ্বাস করি, হ্যাঁ যদি আপনি শুয়োর হন বা আরো সামথিং স্পেশাল যে বইয়ের সংখ্যা দিয়ে আমার ভাষার উদ্ভাসিত করার ক্ষমতা মাপবেন তাহলে ভুল করছেন আমার বই মাত্র দুটি, সারাজীবনে কবিতার বই নতুন আসবেও আর একটি মাত্র। আর আমি মনে করি এই ৩ টাই যথেষ্ট। গদ্যের কথা আলাদা। তাই বই এর সংখ্যা দিয়ে মাপতে আসবেন না প্লিজ বলবেন না অমুক কবি বছরে ৬ টা বই করে কি পরিমান লেখেরে বাবাহ, এগো মাথায় আল্লাহ কি দিছে, নাজিল হয় এসব প্লিজ আমাকে শুনাতে আসবেন না। একটা বিশাল পরিবর্তন চলছে আসছে মানে এক পাথর কে আমরা কয়েকজন আমাদের ভাষা স্টাইল বলার স্টাইল দিয়ে ঠেলে উপরে তুলছি, এটা কঠিন, সত্যি কঠিন, বছরে ৬ টা বই করার মতন সহজ না ভাষা নিয়ে এত লং জাম্প দেয়া। আমার কবিতায় মেটাফেরোর ইউজ অনেক, এইটা নিয়া আসলে আমিই কিছু বলবোনা কারন এইসব খুজে বের করা সমালোচকের কাজ আমার কাজ না, আর্নেস্ট হেমিংওয়ে নই আমি যে বিরক্ত অনুভব করবো বলতে একজন লেখক কি ভাবে লেখেন সে বিষয়ে কথা বলতে বরং আমি বলতে চাই আর বলতে চাই এটুকুই...আমি উদ্ভট কোনো সাধনা করিনা। আমি উদ্ভট কোনো সাধনা করিনা। ধর্মতাত্ত্বিকদের সহ কোনো তাত্ত্বিকদের কাছে যাইনা, আবার বলি আমি উদ্ভট কোনো সাধনা করিনা, খুব মন্থর গতিতে লেখি...আমার কবিতা আসে আমার যাপিত জীবন থেকে ছিন্ন পরিবার চুপচাপ দুপুর রোদে বান্ধবী'দের স্তন হতে মেলে দেয়া অজস্র কমল হতে...আসে অস্বাভাবিক দুঃখ হতে।

Post a Comment

أحدث أقدم