আবু জাফর সৈকত এর কবিতা | মিহিন্দা




আমার আমি



আমি কতটুকু আমার সে প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে খুঁজতে
ডুবিয়ে রাখি পা
ধাওয়া করি, শুরু হয় দৌঁড়ঝাপ
কসরত কত আছে হয় যাচাই ...
অজ্ঞাত বাউল সুর অসম্প্রদায়িক তালে
ভাসিয়ে নেয় অন্ধকারের অন্ধকারে।
অসমাপ্ত পান্ডুরিপির ভাঁজে-
ছলাৎ ছলাৎ করে অপ্রস্তুত তন্ত্রমন্ত্র। আজ অমাবশ্যা
কেন যেন মনে হয়- অমাবশ্যা আছে বলেই আছি

অবৈধ সংলাপে গোষ্ঠী উদ্ধার করি,
মন্ত্র আউড়াই, তন্ত্র
নিষিদ্ধ হরফ খামচে বেয়ে উঠি আরশ
আমার কতটুকু আমি- সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে খুঁজতে
আমার সময়গুলো বয়ে যায়
আমি হুদাই হয়রান হই।




একটু লাজুক হাসি চাই



সমাজ, রাষ্ট্র এমনকি পতিতালয়ও
ধূলোর সাথে সখ্যতা খুব তোমার
তুমি-
শব্দ গুণো
অসীম থেকে শুরু করে শূন্যে নেমে আসো
আগলানো চাতালে
তুমি চাল চোরেদের রাজ্য বানাও
অন্ধকারে অন্ধকারে করোনা হয়ে হজম করো গলা অব্দি

আমি ছোনের ঘরের ছা-পোষা কেরানী-
অন্তরালে অন্তর্বাসে কন্ডম ভায়াগ্রা বৃথাই চালাই
বুকের ভিতর পুষে রাখি হাজার জনপদ
বছর বছর উড়ে বেড়াই, ডিগ্রী আনি
লাজুক চাহনি...


1 মন্তব্যসমূহ

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

নবীনতর পূর্বতন