সাজিদ বিন আজাদ - এর কবিতা | মিহিন্দা

 



জন্ম কোনো সুন্দর, শৈল্পিক দৃশ্য নয়।
মৃত্যু অপরূপ সুন্দর,অমোঘ।
আর মৃত্যুর ভেতর সবচাইতে কুৎসিত,কদাকার হচ্ছে
সিলিং এর সাথে ঝুলে পড়া
কিম্বা এনডিন-পেথিড্রিন গিলে খাদ্যনালি চিরে ফেলা।
আপনি মরতে চান?
আহলান, সাহলান,স্বাগতম,সুস্বাগতম।
শুধু অনুরোধ
মৃত্যুটাকে সুন্দর করুন।
তাতে একটু শিল্প ঢেলে দিন।
তাতে কবিতার মত ছন্দ মেখে দিন খানিকটা
যেন মানুষ আপনার মৃত্যুকে পড়ে আনন্দিত হয়।
সোমবার সন্ধ্যায় ঝুলতে চাইলে রবিবার সকালে গিয়ে ঘনকালো চোখদুটো কাউকে মুফতে দিয়ে আসুন।দুপুরে কিডনি বেঁচে রোস্তমের দোকানে বসে এক কাপ চা খান।
"চায়ে চিনি বেশি ক্যান রে শুওরের পুত?"
বলে শেষ একটা গালিও দিতে পারেন।
রোস্তমের ছোটো পোলারে দেখে আপনার মেজাজ গরম।
হারামজাদাকে ঠাটিয়ে একটা চড় মারা যেতে পারে।
শেষ চড় বলে কথা।
এরপর মরে যান।
বিশ্বাস করেন।
এই মরাটা সুন্দর।বড়ো বেশি সুন্দর।
রোস্তমের ছাওয়ালডার একটা কিডনির বড়ো জরুরত।আর আপনার জন্য আত্মহত্যা।
আর এই মৃত্যুটা যত্ন করে মিটসেফে তুলে রাখার জন্য একজন কবির।
বড়ো বেশি জরুরত।

Post a Comment

নবীনতর পূর্বতন